মোবাইলে ইমেজ দিয়ে গান বানানো সফটওয়্যার | ছবি দিয়ে ভিডিও গান বানানোর সেরা কিছু অ্যাপস

মোবাইলে ইমেজ দিয়ে গান বানানো সফটওয়্যার | ছবি দিয়ে ভিডিও গান বানানোর সেরা কিছু অ্যাপস: আজকাল মানুষের সব থেকে কাছের এবং ব্যবহার্য জিনিস হচ্ছে মোবাইল ফোন। যার সাহায্যে মানুষ নিজেদের প্রয়োজন, অপ্রয়োজন, শখ আহ্লাদ ইত্যাদি সবই পূরণ করেন। আবার বন্ধু মহলে নিজের জনপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্য এমন অনেকেই ভিডিও তৈরি করেন।

ছবি দিয়ে ভিডিও বানানোর এপস সম্পর্কে অনেকেই জানেন, আবার অনেকেই জানেন না। আর তাই আপনারা যারা নিজেদের পিকচার দিয়ে ভিডিও বানানোর ইচ্ছা পূরণ করতে চান তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেল। কারণ আজকের এই আর্টিকেল আমরা পিকচার দিয়ে ভিডিও বানানোর সফটওয়্যার অর্থাৎ গান বানানোর নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

তাহলে চলুন আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে জেনে নেই কিভাবে একটি ফটো ভিডিও মেকার ব্যবহার করে ছবি দিয়ে ভিডিও গান উপস্থাপন করা যায়। 

ছবি দিয়ে গান বানানোর সেরা মোবাইল অ্যাপস

ফটো ব্যবহার করে ভিডিও বানানোর অ্যাপস এর সংখ্যা অনেক। তবে একেকটি অ্যাপস একেক রকম সুবিধা দিয়ে থাকে বলে মানুষ ভিন্ন ভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার করে। তবে এ পর্যন্ত সবচেয়ে জনপ্রিয় হয়ে সুনাম বয়ে নিয়ে আসছে FilmorGo ফটো ভিডিও মেকার উইথ মিউজিক অ্যাপসটি।

যা আপনারা খুব সহজেই আপনার ফোনের প্লে স্টোরে গিয়ে ডাউনলোড করতে পারবেন। তবে চলুন এবার জেনে নেই সেরা মোবাইল সফটওয়্যার গুলোর নাম। যেগুলোতে ছবি বসানো সম্ভব হবে, সেই সাথে বানাতে পারবেন দারুন প্রফেশনাল গান। 

  • ১. VivaVideo (Make Photo To Video) –Link
  • ২. Music Video Maker: Slideshow –Link
  • ৩. VideoShow (Make Photo To Video) –Link
  • ৪. Slideshow Maker (Photo 2 Video Apps)-Link

 

VivaVideo (Make Photo To Video)

ল্যাপটপ অথবা মোবাইল ফোন যেকোনো একটি ডিভাইস ব্যবহার করে আপনি তৈরি করতে পারবেন ছবি দিয়ে ভিডিও। ভিডিও এডিটিং অ্যাপস গুলোর মধ্যে VivaVideo (Make Photo To Video) একটি অন্যতম সেরা এপস। যার মাধ্যমে খুব সহজে প্রফেশনালি ভিডিও এডিটিং করা যায়। অ্যাপসটির সুবিধা: 

  • উন্নতমানের Text Effect  
  • Trendy Filters  
  • Slide Excitement  
  • Transition  
  • Update Effect  
  • New Sticker  
  • Own Audio Music  
  • Sound Effect

আর সবচাইতে মজার ব্যাপার হচ্ছে আপনি যদি এই অ্যাপসটি ব্যবহার করেন তাহলে অনেক প্রিমিয়াম ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন। উল্লেখিত এই সুবিধা গুলোর পাশাপাশি এমন অনেক অপশন রয়েছে যেগুলো একটি ভিডিও কে মাধুর্যপূর্ণ করে তোলে। আপনি প্লে স্টোরে গিয়ে খুব ইজিলি এই অ্যাপসটি ডাউনলোড করতে পারবেন এবং কোন প্রকারের খরচ করতে হবে না। 

Music Video Maker: Slideshow

জনপ্রিয় আরেকটি অ্যাপস হচ্ছে Music Video Maker: Slideshow. আপনি ছবি থেকে গান বলুন, আর ভিডিও এডিটিং এর জন্য অ্যাপস বলুন, সব দিক দিয়ে একদম পারফেক্ট এটি। এই অ্যাপসটিতে ফিচারগুলোকে এমন ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, যা আপনি ভাবতেও পারবেন না। এখান থেকে আপনি মূলত যে যে সুবিধা গুলো পাবেন সেগুলো হলো: 

  • HD Export 
  • 150+ Free Audio Library  
  • Text Effect  
  • Fx Effect  
  • Modern Filters 
  • Transition

তবে এই ফিচারগুলোর পাশাপাশি এমন অনেক অসংখ্য ফিচার রয়েছে যার সাহায্যে আপনি অনেক ভালভাবে ভিডিও এডিটিং সম্পন্ন করতে পারবেন।

VideoShow (Make Photo To Video)

ছবি দিয়ে গান বানানোর অ্যাপস হচ্ছে VideoShow (Make Photo To Video). বর্তমানে মোবাইল এবং কম্পিউটার দুই ধরনের ডিভাইসের জন্য উৎকৃষ্ট এই অ্যাপসটিতে রয়েছে নজর করা ফিচার। এখানে মূলত বেশ কয়েকটি মাধ্যম রয়েছে যেগুলোর সাহায্যে খুব সহজেই এবং সুন্দর ভাবে ভিডিও এডিট করা সম্ভব। সেগুলো হচ্ছে

  • HD Export Facility  
  • 100+ Free Audio Library  
  • Text Effect  
  • Fx Effect  
  • Modern Filters 
  • Transition সহো অনেক।

এক কথায়, সকল প্রকার আধুনিক মাধ্যমগুলো ব্যবহার করতে পারবেন আপনি ভিডিও মেক ফটো টু ভিডিও অ্যাপসটিতে। 

Slideshow Maker (Photo 2 Video Apps)

শুধুমাত্র গানের সঙ্গে ছবি মেলানোর জন্য উৎকৃষ্ট সফটওয়্যার হচ্ছে স্লাইড শো মেকার। এর সাহায্যে খুব সহজে কোন গানের ছবি লাগানো সম্ভব। এখানে মূলত আপনি এক বা একাধিক ইমেজকে একসাথে যুক্ত করতে পারবেন সেই সাথে বিভিন্ন ইফেক্ট ব্যবহারের সুবিধা পাবেন। যেমন:

  • Text Frame 
  • Contrast 
  • Paint Image 
  • Orientation  
  • Image Croper

আশা করি, যে বা যারা মোবাইলে ইমেজ দিয়ে গান বানানোর চেষ্টা করছেন তাদের জন্য এই কয়েকটি মোবাইল অ্যাপস বেশ কাজে দেবে। 

ছবি দিয়ে ভিডিও গান বানানোর সেরা কিছু সফটওয়্যার

আমাদের সাজেস্ট করা চারটি অ্যাপস/সফটওয়্যার ছাড়াও আরো যে সকল সফটওয়্যার ব্যবহার করতে পারবেন সেগুলো হচ্ছে:

  • From sources across the web
  • KineMaster
  • PowerDirector
  • GoPro Quik
  • FilmoraGo – Video Editor, Video Maker For YouTube
  • InShot
  • VideoShow Video Editor & Maker
  • Funimate Video Editor
  • VSDC Free Video Editor

How To Edit Photo Video In Inshot

তবে কিছু কিছু সফটওয়্যার পেইড করার মাধ্যমে ব্যবহার করতে হয়। তবে আমরা সব সময় সাজেস্ট করব ফ্রি সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করতে। এতে করে আপনার খরচ বাজবে সেই সাথে সুন্দর ভিডিও এডিট করা সম্ভব হবে শুধুমাত্র হাতে থাকা মোবাইলের মাধ্যমে। এবার চলুন জেনে নেই কেন ছবি দিয়ে ভিডিও বানাতে হবে? ছবির সঙ্গে ছবি জোড়া লাগিয়ে সাথে মিউজিক অ্যাড করে ভিডিও বানিয়ে লাভ কি?

ছবি দিয়ে ভিডিও গান বানানোর সুবিধা কি?

এটা আমাদের এখন কারোর অজানা নয় যে অনলাইনে এমন অনেক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে যেখানে ভিডিও শেয়ার করার মাধ্যমে টাকা উপার্জন করা সম্ভব হচ্ছে। তবে শুধু টাকা ইনকাম করা মানুষের উদ্দেশ্য থাকে না। এর পাশাপাশি আরও কিছু কারণ থেকে থাকে, যেমন: বন্ধু মহলে প্রশংসা পাওয়া। তা এই পর্যায়ে আমরা ছবি দিয়ে ভিডিও গান বানানোর সুবিধা হিসেবে দুটি কারণ উল্লেখ করছি। 

  • ১. অনলাইন থেকে টাকা আয় করা
  • ২. বন্ধু মহলে নিজের পরিচিতি করে তোলা

যেহেতু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক,সে সাথে ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম এমনকি google পর্যন্ত ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠছে, তাই আপনি চাইলেই শখের বসে আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোনের এই কয়েকটি অ্যাপস এর মাধ্যমে সুন্দর সুন্দর ভিডিও তৈরি করতে পারেন এবং তা নিজের চ্যানেলে পাবলিশ করতে পারেন।

এতে করে যেমন আপনার ফেসবুক পেজ থেকে ইনকাম হবে একইভাবে ইউটিউব থেকে ইনকাম করা সম্ভব হবে। পাশাপাশি বন্ধু মহলে আপনার সুন্দর সুন্দর ভিডিও মিউজিকের কারণে আলাদা একটা পরিচিতি করে উঠবে। যেটা আপনাকে ভেতর থেকে অনেক বেশি অনুপ্রেরণা যোগাবে। 

ছবি দিয়ে গান বানানোর সফটওয়্যার ব্যবহারের নিয়ম

আমরা আর্টিকেলের এ পর্যায়ে ছবি দিয়ে গান বানানোর সফটওয়্যার FilmoraGo ব্যবহারের নিয়ম কিছুটা আলোচনা করব। দেখুন সর্বপ্রথম আপনি যদি ভিডিও তৈরি করতে চান তাহলে সেই অ্যাপস এ প্রবেশ করতে হবে এটা কাউকে বলে দিতে হবে না। আর আপনি যখন সেই অ্যাপস এ ক্লিক করে ঢুকবেন তখন আপনার সামনে ভিডিও এডিটিং এর অনেকগুলো অপশন আসবে।

আর আপনি আপনার ভিডিওর জন্য বিভিন্ন ইফেক্টসহ অনেক কিছু যুক্ত করতে পারবেন সেখান থেকে। প্রথমত আপনাকে সেখানে আপনি যে মিউজিকের সঙ্গে ছবি এড করতে চাচ্ছেন সেটা ইম্পোর্ট করতে হবে অর্থাৎ সেখানে আপলোড করতে হবে। পরবর্তীতে যে যে ছবিগুলো আপনি ব্যবহার করবেন সেগুলো আপনার ইমপোর্ট করতে হবে।

তারপর এক একটি ফিচার ব্যবহার করে অর্থাৎ এক একটা অংশ ব্যবহার করে খুব সুন্দরভাবে প্রফেশনালি এডিট করতে হবে ভিডিও। এবার আমরা আপনাদেরকে কয়েকটি অপশন সম্পর্কে ধারণা দেব। সেগুলো হচ্ছে

  • ডিউরেশন
  • ডুবলিকেট
  • রোটেট
  • এডজাস্ট
  • টাইটেল
  • অভারলে
  • এলিমেন্টস
  • ফিল্টার
  • পিপ
  • ভয়েস ওভার
  • সাবটাইটেল

FilmoraGo ব্যবহারের নিয়ম

ডিউরেশন, এই অপশনটি ব্যবহার করে আপনি আপনার ছবিটি কতক্ষণ ভিডিওতে দেখাবেন সেটা সেটআপ করতে পারবেন। সুবটাইটেল এই অপশনটি ব্যবহার করতে পারবেন ভিডিওতে কোন প্রকার লেখা যোগ করার জন্য। ভয়েস ওভার অপশনটি ব্যবহার করে খুব সহজেই ছবির সাথে আপনার নিজের ভয়েস রেকর্ড করে এড করে নিতে পারবেন।

অপরদিকে পিপ নামক অপশনটি দ্বারা আপনি আপনার ছবির উপর অন্য আরেকটি ছবি এড করে নিতে পারবেন। এলিমেন্টস অপশনটি ব্যবহার করে ভিডিওতে বিভিন্ন ধরনের আইকন এডিট করতে পারবেন ফিল্টার অপশন এর মাধ্যমে ব্যবহার করতে পারবেন ছবিতে বিভিন্ন কালারের এফেক্ট। আবার ওভারলে অপশনটি ব্যবহার করতে পারবেন আপনার ছবিতে অ্যানিমেটেড ইফেক্ট ইউজ করার ক্ষেত্রে। ঠিক একইভাবে প্রত্যেকটি অপশানে আপনি গেলে বুঝতে পারবেন সেটা ভিডিও এডিটিং এ কোন কোন কাজে আসবে।

How To Edit Photo Video

পরিশেষে: তো পাঠক বন্ধুরা, এই ছিল মোবাইলে ইমেজ দিয়ে গান বানানোর সফটওয়্যার সংক্রান্ত আর্টিকেল। যদি আপনাদের কোন মতামত থেকে থাকে কমেন্ট করে জানাবেন। সেই সাথে আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করতে এবং যে কোন পোষ্টের নোটিফিকেশন পেতে সাবস্ক্রাইব করে রাখবেন। আল্লাহ হাফেজ।

About Shanto Khan

Tech Shanto is a Bangladeshi YouTuber and Freelancer who loves to share his experience with all. If you want to learn awesome tips and tricks with Tech Shanto then stay connected.

View all posts by Shanto Khan →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *