লেখালেখির মাধ্যমে কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা যায়

লেখালেখির মাধ্যমে কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা যায়

লেখালেখিকে কি পেশা হিসেবে নেওয়া সম্ভব! অনলাইনে আমি যদি লেখালেখির কাজ করতে চাই তাহলে কিভাবে শুরু করব? মূলত আপনাদের এই সকল প্রশ্নের উত্তর নিয়েই আমাদের আজকের এই কনটেন্টটি সাজানো হয়েছে।

সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা, আপনি যদি অনলাইনে ইনকাম সম্পর্কে একেবারেই না জেনে থাকেন এবং এই সেক্টরে একদমই নতুন হয়ে থাকেন তাহলে বলব আজকের এই আর্টিকেল সম্পূর্ণ মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কেননা আজ আমরা লেখালেখির মাধ্যমে কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি অতি সংক্ষেপে।

সেই সাথে আপনি যদি অনলাইনে ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ উপায় সমূহ সম্পর্কে অবগত হতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইট থেকে পড়ে ফেলতে পারেন এই রিলেটেড আর একটি আর্টিকেল। যেটা ইতোমধ্যে আমরা পাবলিশ করেছি। তাহলে আসুন কথা না বাড়িয়ে আমাদের মূল আলোচনা পর্ব শুরু করা যাক।

লেখালেখির মাধ্যমে কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা যায়?
আমাদের মধ্যে যারা গৃহিণী বা ছাত্র-ছাত্রী তারা মূলত এই প্রশ্নটি অধিক বেশি করে থাকেন। অনেকেই রয়েছেন যারা লেখালেখি করতে অনেক ভালোবাসেন এবং খুব ভালো লেখালেখি করতে জানেন। কিন্তু অনলাইনে কিভাবে লেখালেখি করে টাকা ইনকাম করা সম্ভব সেই উপায় বা টেকনিকটা জানা নেই।

দেখুন, সত্যি বলতে আপনার মধ্যে যদি লেখালেখি করার গুণাবলীটা থেকে থাকে তাহলে আপনি কিন্তু অফলাইন এবং অনলাইন দুইটি মাধ্যমে কনটেন্ট রাইটিং এর মাধ্যমে ইনকাম করতে সক্ষম হবেন। কেননা দেশের বিভিন্ন পত্রিকা ও ম্যাগাজিনের জন্য আর্টিকেল রাইটারের প্রয়োজন পড়ে।

তাই আপনি সেই সকল পত্রিকা বা ম্যাগাজিনের হয়ে অফলাইনে কন্টেন্ট রাইটিং অর্থাৎ লেখালেখির কাজ করতে পারবেন। ঠিক একইভাবে অনলাইনে এসে স্ক্রিপ্ট ও কনটেন্ট রাইটিং এর কাজও করতে পারবেন। মূলত অনলাইনে লেখালেখি করে টাকা ইনকামের উপায় হচ্ছে রাইটিং সার্ভিস দেওয়া।

এখন কথা হল আপনি সার্ভিস দেওয়ার জন্য কাদেরকে খুঁজবেন এবং কিভাবে বুঝবেন? এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে নিচের স্টেপগুলো মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কেননা ধারাবাহিকভাবে আমরা লেখালেখি বা কনটেন্ট রাইটিং সার্ভিস দেওয়ার প্রক্রিয়াগুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

কনটেন্ট রাইটার হিসেবে কাজে নিযুক্ত হওয়ার উপায়
কন্টেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত হওয়ার জন্য শুরুর দিকে মূলত আপনাকে আপনার একটা পরিচিতি গড়ে তুলতে হবে। মানে আপনার এমন একটা পোর্টফলিও দাঁড় করাতে হবে যেটার মাধ্যমে ক্লাইন্টরা আপনাকে লেখালেখির জন্য অফার করবেন।

এর জন্য প্রথম দিকে আপনি ফেসবুকে বিভিন্ন কনটেন্ট রাইটিং গ্রুপের সাথে যুক্ত হতে পারেন আবার লেখালেখির বিভিন্ন ওয়েবসাইট বা মোবাইল অ্যাপসে নিজের একাউন্ট ক্রিয়েট করে রাখতে পারেন। পাশাপাশি ক্লায়েন্টকে ডেমো দেখানোর জন্য তিন থেকে চারটি আর্টিকেল লিখে রাখতে পারেন আপনার কাছে।

এরপর যখন আপনি ধীরে ধীরে কাজ করবেন তখন আপনি যে কনটেন্ট রাইটিং সার্ভিস দিয়ে থাকেন এর জন্য একটা প্রোফাইল তৈরি করবেন। যেখানে ক্লায়েন্টরা ডিটেইলসে দেখার পরবর্তীতে আপনাকে নিঃসন্দেহে প্রফেশনাল কনটেন্ট রাইটার হিসেবে মনে করবেন এবং কাজের অফার করবেন। এবার আসুন আলোচনার এ পর্যায়ে জেনে নিন– কনটেন্ট রাইটিং এর জন্য সেরা কিছু ওয়েবসাইট এর নাম। যথা:-

আপ ওয়ার্ক
গুরু
ফাইবার
পিপুল পার আওয়ার
প্রো ব্লগার জব বোর্ড

Home 20

এর বাইরেও অসংখ্য কনটেন্ট রাইটিং জব সার্ভিসিং এর ওয়েবসাইট রয়েছে। যেমন অর্ডিনারি আইটি। তাহলে আর দেরি কেন? সময় নষ্ট না করে শুরু করে দিয়েন আজই। আর হ্যাঁ অনলাইনে কোটি টাকা আয় করার কার্যকরী পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে পড়ে ফেলুন আমাদের এই আর্টিকেলটি।

আর হ্যাঁ, যদি আপনি একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন এবং লেখালেখির কাজ আরম্ভ করেন তাহলে এক্ষেত্রে আপনার কনটেন্ট রাইটিং এর কিছু সুবিধার পাশাপাশি অসুবিধা ভোগ করতে হবে। তাই আলোচনার এই পর্যায়ে লেখালেখি করে টাকা ইনকামের কিছু সুবিধা এবং কিছু অসুবিধা আমরা আপনাদের ভালো কথা চিন্তা করে সাজেস্ট করব।

লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা ইনকামের সুবিধা সমূহ
লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা ইনকামের সুবিধা সমূহ হচ্ছে:-

নিজের ইচ্ছামত স্বাধীনভাবে কাজ করার সুবিধা
অল্প বয়সে উপার্জনের সুব্যবস্থা
চাকরির জন্য চিন্তা না করা
স্বাবলম্বী হতে সাহায্য করা এবং
মোটা অংকের টাকা কামানো
লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা ইনকামের অসুবিধা সমূহ
লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা ইনকামের জন্য যেমন আপনি সুবিধা হিসেবে কিছু বিষয় ভোগ করতে পারবেন ঠিক একইভাবে আপনাকে অসুবিধাগুলো মেনে নিতে হবে। লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা ইনকামের ক্ষেত্রে যে অসুবিধা গুলোর সম্মুখীন হতে হয় সেগুলো মূলত শিক্ষার্থীদের জন্য বেশি অধিক বেশি প্রভাব বিস্তারকারী।

কেননা–

শিক্ষাজীবনে যদি আপনি পড়াশোনার পাশাপাশি কন্টেন্ট রাইটিং এর কাজ করেন তাহলে অনেকটাই সময় দিতে হবে যাতে করে পড়াশোনার ওপর তার প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে।
সঠিক সময়ে কাজ ডেলিভারির দিতে হবে আপনাকে তাই কাজের চাপ থাকার কারণে কখনো পড়াশোনার কথা ভুলতে বসবেন
অল্প বয়সে খুব সহজেই অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারছেন এমন মনোভাবের কারণে পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ কমে যাবে।
এক কথায়, আপনি যদি লেখালেখি পেশাকে পার্ট টাইম হিসেবে নেন তাহলে আপনার জন্য সেটা গ্রহণযোগ্য হবে তাছাড়া এটা যদি ফুল টাইম হিসেবে গ্রহণ করেন তাহলে শিক্ষার্থী হিসেবে তা আপনার জন্য দারুন বাজে প্রভাব ফেলবে।

অতএব যে কোন কাজ করার জন্য সঠিক ভাবে পরিকল্পনা করুন কিভাবে কোন মাধ্যমে করবেন তা ভাবুন পরবর্তীতে সেই কাজটি করার সিদ্ধান্ত নিন। তবে হ্যাঁ আমাদের প্রত্যেকের যেহেতু উদ্দেশ্য সবশেষে টাকা ইনকাম করা, তাই আপনি যদি লেখালেখি পেশাকে প্রফেশনালি নিতে পারেন তাহলে লেখালেখির মাধ্যমে আপনি মাস শেষে ইনকাম করতে পারবেন হাজার থেকে লক্ষ টাকা। যেটা সরকারি চাকরির থেকে অনেক বেশি কিছু পাইয়ে দেবে আপনাকে।

তো সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা, লেখালেখির মাধ্যমে কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা যায় এ সম্পর্কে জানতে পেরে নিশ্চয়ই আপনাদের উপকার হয়েছে। তো আমাদের আজকের আলোচনা পর্বের এখানেই ইতি টানছি। যদি আমাদের আর্টিকেলটি পড়ার পরবর্তীতে আপনি লেখালেখি করে আয় করার কোন দারুন মাধ্যম খুঁজে পেয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

পাশাপাশি ঘরে বসে হাতে লিখে অনলাইনে আয় করার অভিজ্ঞতা আমাদের সাথে শেয়ার করবেন। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ হাফেজ। লেখালেখি করে আয়

About Shanto Khan

Tech Shanto is a Bangladeshi YouTuber and Freelancer who loves to share his experience with all. If you want to learn awesome tips and tricks with Tech Shanto then stay connected.

View all posts by Shanto Khan →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *